ছাগল সম্পর্কে ১৫টি আশ্চর্যজনক তথ্য

ছাগল সম্পর্কে ১৫টি আশ্চর্যজনক তথ্য

লম্বা-চওরা সুঠামদেহী কোন মানুষ একটু ভুল কাজ করলেই আর রক্ষা নেই শুনতে হয় কমন গালি, শালা ছাগল নাকি? অনেকে আবার বোকা পাঁঠা বলতেও পিছুপা হননা। কিন্তু আমরা ছাগল বা বকরি সম্পর্কে কতটা জানি? ছাগল কি সত্যিই বোকা? আজ ছাগল সম্পর্কে ১৫টি আশ্চর্যজনক তথ্য গুলো জেনে নিন যা হয়তো আপনি কথনো শোনেননি।

আপনি আরো পড়তে পারেন… পাঠাঁর গায়ে গন্ধ হয় কেন? পাঠাঁর গন্ধ রহস্য।

ঘাম নিয়ে ১৫টি মজার তথ্য

ছাগল কফি আবিষ্কারক

ছাগল কফি আবিষ্কারক
ছাগল কফি আবিষ্কারক

লোকমুখে এ কথা বেশ প্রচলিত আছে যে, ইথিওপিয়া দেশে ছাগল কফি আবিষ্কার করেছে। ইথিওপিয়ার এক রাখাল তার বকরি চড়ানোর জন্য এক জঙ্গলে যেত। রাখালটি বাড়ি ফিরে দেখতো তার বকরি গুলো কম ঘুমায় এবং বেশ চাঙ্গা থাকে।রাখালটি অনেক পর্যবেক্ষণ করে দেখলো তার বকরি লাল রংয়ের ছোট জামের মত ফল খায়। লোকালয়ে এসে ফলের বিষয়টি সে সবার সাথে আলোচনা করে। এরপর লোকজন কফির ব্যবহার আবিষ্কার করে।

ছাগলের ডাক

 স্থান ভেদে মানুষের ভাষার যেমন পরিবর্তন দেখা যায় তেমনি বিভিন্ন দেশের ছাগলের ডাকের ভঙ্গি ও বিভিন্ন রকমের হয়।
ছাগলের ডাক

বকরি বিভিন্ন উপায়ে পরস্পরের মধ্যে ভাবের আদান-প্রদান করে। স্থান ভেদে মানুষের ভাষার যেমন পরিবর্তন দেখা যায় তেমনি বিভিন্ন দেশের বকরির ডাকের ভঙ্গি ও বিভিন্ন রকমের হয়। এরা বিপদে পরলে ভিন্ন সুরে ডাকে আবার খুশি থাকলে অন্য সুরে ডাকে। মা বকরি তার সন্তানদের ডাক শুনে চিনতে পারে।

আলসে ছাগল

অলস ছাগলের ঘুম
অলস ছাগলের ঘুম

বকরি বেশ অলস প্রকৃতির হয়।পেট একটু ভরা থাকলেই এরা আর ছোটাছুটি করে না শুয়ে থেকে বেশ একটা জম্পেশ ঘুম দেয়। এবার কিন্তু আপনি ছাগলের মত অলস বলে গালি দিতে পারেন।

আব্রাহাম লিংকন ছাগল পছন্দ করতেন

আব্রাহাম লিংকন ছাগল পছন্দ করতেন
লিংকন ছাগল পছন্দ করতেন

আমেরিকার প্রেসিডেন্ট আব্রাহাম লিংকন বকরি খুব ভালোবাসতেন। গৃহপালিত পশুর মধ্যে তার প্রথম পছন্দ ছিল বকরি।

ছাগলের ভারসাম্য রক্ষার ক্ষমতা দুর্দান্ত

ছাগল গাছে উঠে
ছাগল গাছে উঠে

এরা খুব সহজেই পাহাড়ে উঠতে পারে এবং পাহাড়ের খাড়া খাদে অনায়াসে লাফালাফি ও চলাচল করতে পারে। এরা পাঁচ ফুট উচ্চতা থেকে লাফ দিতে পারে। কিছু বকরি গাছে উঠতে পারে।

ছাগলের দুধ মায়ের দুধের বিকল্প

ছাগলের দুধ মায়ের দুধের বিকল্প
ছাগলের দুধ

মায়ের দুধের বিকল্প হিসেবে বকরির দুধ ব্যবহার করা যায়। কারণ মায়ের দুধের সাথে বকরির দুধের প্রায় ৯৮ শতাংশ মিল আছে।

কাশ্মীরি শাল ও বকরির পশম

কাশ্মীরি শাল ও ছাগলের পশমঃ
কাশ্মীরি শাল

সবচেয়ে দামি, কোমল,উন্নত মানের কাশ্মীরি শাল চাদর তৈরি করা হয় ছাগলের পশম দিয়ে। একটি বকরি বছরে 150 গ্রামের মত পশম দিয়ে থাকে। প্রতিবছর প্রায় 50 হাজার টন কাশ্মীরি শাল চাদর উৎপাদন করা হয়।

ছাগলের পাকস্থলী ৪টি

ছাগলের পাকস্থলী ৪টি
ছাগলের পাকস্থির ৪ প্রকোষ্ঠ

বকরির পাকস্থলীর চারটি প্রকোষ্ঠ আছে।এগুলো হলো-(১) উদর (২) জালবৎ থলি (৩) ওমাসাম বা বহুভাজ থলি ও (৪) অ্যাবােমাসাম বা সত্যিকারের পাকস্থলী।

আয়তকার চোখের মনি

আয়তকার চোখের মনি
আয়তকার চোখের মনি

ছাগলের চোখের মনি আয়তক্ষেত্রের মত আকৃতি বিশিষ্ট। মানুষের চোখের মনি বৃত্তাকার। আপনি বোধহয় বিষয়টি কখনো ভালোমত লক্ষ্য করেননি!

ছাগলের উপরের চোয়ালে দাঁত নেই

ছাগলের উপরের চোয়ালে দাঁত নেই
ছাগলের উপরের চোয়ালে দাঁত নেই

বকরির মুখ গহ্বরে দুইটি চোয়াল আছে কিন্তু উপরের চোয়ালের সম্মুখ অংশে কোন দাঁত নেই।এখানে দাঁতের পরিবর্তে শক্ত প্যাড থাকে। এটা ঘাস চিবাতে সাহায্য করে।

প্রথম গৃহপালিত পশু ছাগল

ছাগল প্রথম গৃহপালিত পশু
ছাগল প্রথম গৃহপালিত পশু

প্রায় 11 হাজার বছর আগে থেকে বকরি পালন করা হচ্ছে। মিশরে প্রথম বকরি পালন শুরু হয়। পৃথিবীর প্রথম গৃহপালিত প্রাণী হিসেবে বকরির পরিচিতি আছে।

ছাগল সামাজিক প্রাণী

ছাগল সামাজিক প্রাণী
ছাগল বিষণ্ণতায় ভোগে

কোন বকরিকে তার দল থেকে আলাদা করলে সে খুব বিষণ্ণতায় ভোগে। নিজের মনিবের বাড়ি থেকে অন্য কারও বাড়িতে নিয়ে গেলে এরা 2-3 দিন পর্যন্ত উচ্চ স্বরে চিৎকার করে। বকরি নিজের মনিবের ডাক খুব সহজে চিহ্নিত করতে পারে এবং সাড়া দেয়।

মানুষের মুখভঙ্গি বুঝতে পারে

ছাগল খুব সহজে বিষণ্ন ও খুশি মানুষের চেহারা সনাক্ত করতে পারে
বিষণ্ন ও খুশি মানুষের চেহারা সনাক্ত করতে পারে

বকরি খুব সহজে বিষণ্ন ও খুশি মানুষের চেহারা সনাক্ত করতে পারে।এরা হাসিমুখ পছন্দ করে।মানুষের অঙ্গভঙ্গি বকরি খুব সহজে বুঝে ফেলে। কোন উপহার এদের কাছে লুকিয়ে রাখলে এরা সহজেই বুঝে ফেলে এবং খুঁজে বের হরে। আপনি এদের সামনে চারটি কাপ রাখুন একটিতে খাবার থাকবে অন্যগুলো ফাঁকা। এরা বেশিরভাগ সময় খাদ্যভর্তি কাপটি সনাক্ত করে।

ছাগল বর্ণান্ধ

ছাগল বর্ণান্ধ
ছাগল বর্ণান্ধ

বকরি লাল ও সবুজ রঙ দেখতে পায় না। এই দুটি রঙ ছাড়া বাঁকি সব রঙ দেখতে পায়। বকরি রাতের অন্ধকারে বেশ দেখতে পায়।

বৃষ্টি পছন্দ করে না

ছাগল বৃষ্টির পানি খুব ভয় করে। বৃষ্টি নামলেই এরা নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে দৌড় দেয়। কর্দমাক্ত রাস্তা ছাগল সবসময় এড়িয়ে চলে।
ছাগল বৃষ্টি পছন্দ করে না

বকরি বৃষ্টির পানি খুব ভয় করে। বৃষ্টি নামলেই এরা নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে দৌড় দেয়। কর্দমাক্ত রাস্তা বকরি সবসময় এড়িয়ে চলে।

ছাগলে কিনা খায়

ছাগলে কি না খায়
ছাগলে কি না খায়

পাগলে কিনা বলে ছাগলে কিনা খায় কথাটি একদম ভুল। ছাগল যা তা খায়না এরা বেছেবেছে পুষ্টিকর খাবার টি খেয়ে নেয়। আজেবাজে খাবার এরা একদম খায় না প্রয়োজনে না খেয়ে থাকে।ময়লা খাবার এরা একদম পছন্দ করে না।বকরি মোটেই তৃণভোজী নয় এরা পাতাভোজী। সঠিক খাদ্য নির্বাচনে বকরির বিকল্প খুব কমই আছে প্রাণিজগতে।

Pacemaker santo

https://kotokisuojana.com

লেখাটি ভালো লাগলে আপনার প্রিয়জনের সাথে শেয়ার করুণ।জ্ঞান বিতরণে সাহায্য করুন। আপনি ভালো লিখতে পারলে এই ওয়েবসাইট এ লেখা পাঠান।লেখা মনোনীত হলে পুরস্কার পাবেন।

আপনার মাথায় উদ্ভট কোন প্রশ্ন ঘুরছে কিন্তু উত্তর পাচ্ছেন না। তাহলে দেরি না করে এই পোস্টের নিচে কমেন্ট বক্সে প্রশ্ন টি লিখুন।উত্তর পাবেন নিশ্চিত।

All photo credit Goes to sutterstock.com

85 / 100

4 thoughts on “ছাগল সম্পর্কে ১৫টি আশ্চর্যজনক তথ্য”

Leave a Comment