কোকিল কাকের বাসায় ডিম পারে কেন?

কোকিল কাকের বাসায় ডিম পারে কেন?

আমরা ছোট বেলা থেকে শুনে এসেছি কোকিল বাসা বাধেনা। এরা কাকের বাসায় ডিম পারে। কিন্তু কোকিল কাকের বাসায় ডিম পাড়ে কেন?এই প্রশ্নের উত্তর ছোটকাল থেকে আজ অব্ধি অনেকেই পাননি। অনেক লোক কে জিজ্ঞেস করলে মনগড়া উত্তর দেয়। কেউ আবার পৌরাণিক গল্প বানিয়ে শুনিয়ে দেয়। সব ভ্রান্ত ধারণা পায়ে পিষে সঠিক কারণ খুঁজ বের করি আজ, কোকিল কাকের বাসায় ডিম পাড়ে কেন?

আপনি আরো পড়তে পারেন………… কোকিল বাসা বানায় না কেন? কোকিলের ডাক নকল করলে সে আরো জোরো ডাকে কেন?

প্রথমে জানবো

ব্রুড প্যারাসাইট পাখি কি?

নিজে বাসা না বানিয়ে অন্য পাখির বাসায় ডিম পাড়ে এবং ঐ পাখির তত্ত্বাবধায়নে নিজের সন্তান বড় করে নেয় তাকে ব্রুড প্যারাসাইট পাখি বলে।
ব্রুড প্যারাসাইট পাখি কখনোই নিজের সন্তানকে মমতা দিয়ে বড় করে না।সন্তানের দায়িত্ব সবসময় পোষক পাখির উপর ছেড়ে দেয়।ব্রুড প্যারাসাইট পাখি যে পাখির তত্ত্বাবধায়নে সন্তান বড় করিয়ে নেয় তাকে পোষক পাখি বলে।

এরা যেহেতু সন্তান পালন করে না, তাই এদের অনেক সময় বেঁচে যায় মানে বাসা বানাতে হয় না। এই বেঁচে যাওয়া সময় কাজে লাগিয়ে ব্রুড প্যারাসাইট পাখি পোষক পাখির বাসা অনুসন্ধান করার জন্য বনের একপ্রান্ত থেকে অন্যপ্রান্ত চষে বেড়ায়। সুযোগ পেলেই পোষক পাখির বাসায় ডিম পাড়ে আর আরামে বাচ্চা জন্ম দিয়ে নিজের বংশবৃদ্ধি করে বেড়ায়।

ব্রুড-প্যারাসাইটিজম
ব্রুড-প্যারাসাইটিজম

কোকিল হলো একটি ব্রুড প্যাসাইট পাখি। কোকিলের ডিমের সাথে কাকের ডিমের রং ও আকৃতিগত পার্থক্য আছে। বাজ কোকিলের ডিমের রঙ ও আকৃতি হয় হুবহু সাতভাই ছাতার(Jungle Babbler) পাখিদের ডিমের মত।


সুযোগ বুঝে এরা যখন পোষক পাখির বাসায় ডিম পারে এবং গুণে গুণে নিজের ডিমের সংখ্যার সমান সংখ্যক পোষকের ডিম বাসা থেকে ফেলে দেয়। পোষক পাখি নিজের ডিমের সাথে ব্রুড প্যারাসাইট এর ডিমের পার্থক্য করতে পারে না। ভুল করে নিজের ডিম ভেবে অন্য পাখির ডিমে তা দেয় এবং বাচ্চা ফোটায়। এই প্যারাসাইট কোকিলের বাচ্চারা আবার মায়ের তুলনায় এক কাঠি সরেস। এরা খাবার বেশি খাওয়ার জন্য দেহের আকৃতি কাকের বাচ্চার চেয়ে বড় হয়।

এদের শক্তি বেশি থাকে। এই শক্তি ও দেহের আকৃতি কাজে লাগিয়ে এরা কাকের বাচ্চাকে বাসা থেকে ঠেলে বাইরে ফেলে দেয়। ভাবা যায় কতটা অকৃতজ্ঞ যার খায় তারই হৃদয়ের টুকরা সন্তানকে হত্যা করে। কাক কত বোকা যে কোকিলের বাচ্চা আহার যোগানোর জন্য সারাদিন খেটে মরে।

প্রথম দিকে ছানাদের গায়ে কোন পালক থাকে না তাই কাক বাবা-মা এদের চিনতে পারে না। কিন্তু পালক গজানোর পর যখন চিনতে পারে তখন এদের তাড়িয়ে দেয়।কাকের বাসায় বাজ পাখি, সাপ হানা দিলে এই কোকিলের ছানারা একধরণের বাজে গন্ধ সৃষ্টি করে এই গন্ধ সহ্য করতে না পেরে শিকারি পলায়ন করে। এটা কোকিলের বাচ্চার পক্ষ থেকে পালক বাবা-মা এর জন্য সামান্য ঋণ শোধ করার প্রচেষ্টা আরকি।

কোকিল কাকের বাসায় ডিম পারে কেন?

প্রজননকালে কোকিল সন্তান উৎপাদনের জন্য বাসা বানায় না।কিন্তু প্রাকৃতিক কারণে এদের প্রজনন প্রক্রিয়ার বিভিন্ন শারীরবৃত্তীয় ক্রিয়া চলতে থাকে ফলে এদের ডিম তৈরি হয় এবং ডিমপাড়ে। এদের যেহেতু বাসা নেই তাহলে ডিম ফুটে বাচ্চা বের হবে কি করে? এই সমস্যা সমাধানের জন্য এরা এদের ডিমের সাথে সাদৃশ্য আছে এমন পাখির বাসায় ডিম পারে। যেসব পাখির বাসায় এরা ডিম পারে তারমধ্য উল্লেখযোগ্য পাখি হলো কাক।

কোকিল কাকের বাসায় ডিম পারে কেন?
কাকের লালন পালন

কোকিল কাক ছাড়াও আরো অন্য পাখির বাসায় ডিম পারে। বাংলাদেশের কোকিল প্রজাতি শালিক, কসাই পাখি এবং ছাতার পাখির বাসায় ডিম পারে। ভারতীয় প্রজাতির সদস্যরা মূলত কাকের বাসায় ডিম পারে। এছাড়াও ফিঙে, দোয়েল, বেনে বৌ পাখির বাসায়ও এরা ডিম পারে।কাক প্রতিদিন একটি করে মোটামুটি গোটা পাঁচেক ডিম পাড়ে। ঠিক এ সময়ের মধ্যেই স্ত্রীটি কাকের বাসায় ডিম পাড়ে। সব ডিম একই কাকের বাসায় না পেড়ে ভিন্ন ভিন্ন কাকের বাসায় একটি করে ডিম পাড়ে। এতে কাক নিজের অনেকগুলো ডিমের মধ্যে একটি কোকিলের ডিম চিনতে পারে না। কি বুদ্ধি বাবা!!!

কোকিলের ডিমের ছবি

কোকিলের ডিম
কোকিলের ডিম

কাকের ডিমের ছবি

কাকের ডিম
কাকের ডিম

কোন পাখি অন্যের বাসায় ডিম পাড়ে?

কোকিল কাকের বাসায় ডিম পারে কেন?

কোকিল কোন পাখির বাসায় ডিম পারে?

কোকিল কাকের বাসায় ডিম পারে|এছাড়াও ফিঙে, দোয়েল, বেনে বৌ পাখির বাসায়ও এরা ডিম পারে।

Kokil kak er bashay dip pare keno?

why cuckoo lay egg in the nest of crow in Bangla, kaker basay kokil dim pare keno? brood parasitism ki? kaker dim, kokiler dim,

Tag: কোকিল কাকের বাসায় ডিম পারে কোকিল কাকের বাসায় ডিম পারে কেন? কোকিল কাকের বাসায় ডিম পারে কেন? কোকিল কাকের বাসায় ডিম পারে কেন?

Please Click on Just one Add to help us

মহাশয়, জ্ঞান বিতরণের মত মহৎ কাজে অংশ নিন।ওয়েবসাইট টি পরিচালনার খরচ হিসেবে আপনি কিছু অনুদান দিতে পারেন, স্পন্সর করতে পারেন, এড দিতে পারেন, নিজে না পারলে চ্যারিটি ফান্ডের বা দাতাদের জানাতে পারেন। অনুদান পাঠাতে পারেন এই নম্বরে ০১৭২৩১৬৫৪০৪ বিকাশ,নগদ,রকেট।

এই ওয়েবসাইট আমার নিজের খরচায় চালাই। এড থেকে ডোমেইন খরচই উঠেনা। আমি একা প্রচুর সময় দেই। শিক্ষক হিসেবে আমার জ্ঞান দানের ইচ্ছা থেকেই এই প্রচেষ্টা। আপনি লিখতে পারেন এই ব্লগে। এগিয়ে নিন বাংলায় ভালো কিছু শেখার প্রচেষ্টা।

DMCA.com Protection Status