ক্যান্সার রোগীর মৃত্যুভয় দূর করার উপায়#

ক্যান্সার রোগীর মৃত্যুভয় দূর করার উপায়#

ক্যান্সার রোগের নাম শুনলেই মনে ভয় জমতে শুরু করে আর যে ব্যক্তির ক্যান্সার হয়েছে তার মনের কি অবস্থা একবার চিন্তা করুন। ক্যান্সারে আক্রান্ত ব্যক্তি সবসময় মৃত্যু ভয়ে থাকেন। শরীর একটু খারাপ হলেই ভাবেন এই বুঝি জীবনটা গেলো। এই ধরণের ভয় মন থেকে দূর করতে না পারলে কোন চিকিতসাই কাজে আসবে না।

মনের জোড় বাড়াতে পারলে দেহ এমনিতে জেগে উঠবে রোগ মুক্তির জন্য দেহ নিজের প্রতিরোধ ব্যবস্থাকে কাজে লাগাবে। ক্যান্সার রোগ সারানোর মহৌষধ হলো ক্যান্সার রোগীর মৃত্যুভয় দূর করা। আসুন আজ আলোচনা করা যাক ক্যান্সার রোগীর মৃত্যুভয় দূর করার উপায় সম্পর্কে।

ক্যান্সার রোগীর মৃত্যুভয় দূর করার উপায়#
ক্যান্সার রোগীর মৃত্যুভয় দূর করার উপায়#

আপনি আরো পড়তে পারেন ………… ক্যান্সার রোগির মৃত্যুর লক্ষণগুলো কি? ….. ক্যান্সার থেকে বাঁচবেন কিভাবে? …. ক্যান্সার কেন হয়? ..

ক্যান্সার রোগীর মৃত্যুভয় দূর করার উপায়

ইতিবাচক চিন্তা করুন,পরিবারের কথা চিন্তা করুন,স্মৃতি মনে করুন,ফিট থাকুন,ভয়ের বিষয়টি আপনজনদের জানান,একা থাকবেন না,কাজে ব্যস্ত থাকুন,বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিন,ভ্রমণ করুন

ক্যান্সার রোগীর মৃত্যুভয় দূর করার উপায়

ক্যান্সার রোগীর মৃত্যুভয় দূর করতে কিছু সহজ টিপস ফলো করতে পারেন। নিচে এগুলো ধারাবাহিকভাবে বর্ণনা করা যাক…..

ইতিবাচক চিন্তা করুন

ইতিবাচক চিন্তা
ইতিবাচক চিন্তা

ক্যান্সার হয়েছে বলে আর বাঁচবেন না এই চিন্তা একদম করবেন না। বেশিরভাগ ক্যান্সার নিরাময়যোগ্য। প্রাথমিক পর্যায়ে ক্যান্সার ধরা পরলে ৯০% রোগী সুস্থ হয়ে যান। ২য় পর্যায়ে ক্যান্সার সনাক্ত হলে ৬০% রোগী সুস্থ হয়ে যান। তাই নেতিবাচক চিন্তা বাদ দিন।

মনে সাহস রাখুন আপনি ভালো হয়ে যাবেন। মনের বল না বাড়লে শরীর হাল ছেড়ে দেবে তখন কোন ঔষধ শরীরে শতভাগ কাজ করবে না। আপনার বেঁচে থাকার প্রচণ্ড ইচ্ছা শরীর কে জাগ্রত করবে। শরীরের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বহুগুণে বৃদ্ধি পাবে।এতে ক্যান্সার রোগীর মৃত্যুভয় এমনি পালাবে।

পরিবারের কথা চিন্তা করুন

পরিবারের কথা চিন্তা করুন
পরিবারের কথা চিন্তা করুন

আপনার মৃত্যুর পর আপনার পরিবারের কি হবে?আপনার স্ত্রী কিভাবে জীবন অতিবাহিত করবে আপনাকে ছাড়া?আপনার সন্তান কিভাবে বেড়ে উঠবে বাবা ছাড়া? এসব প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে থাকলে নিজের জন্য না হলেও পরিবারের জন্য বেঁচে থাকার তীব্র বাসনা তৈরি হবে। এই ইচ্ছার জন্য আপনি কষ্ট হলেও নিয়মিত খাবার খাবেন,ঔষধ ঠিকঠাক গ্রহণ করবেন। এতে দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবেন।

স্মৃতি মনে করুন

পুরনো স্মৃতি মনে করুন
পুরনো স্মৃতি মনে করুন

নিজের জীবনের পুরাতন স্মৃতি উল্টে পাল্টে দেখতে থাকুন। হঠাৎ মনে পরে যাবে এই কাজটি করা উচিত ছিলো কিন্তু করা হয় নি। এখনো কাজটি করা সম্ভব। এবার কাজটি করার জন্য আপনি উঠেপড়ে লাগুন। এই কাজের ব্যস্ত সময়ে মৃত্যুভয় কাছে আসার সুযোগ পাবে না। কাজটি শেষ না হওয়া পর্যন্ত আপনি বেঁচে থাকার সর্বাত্মক চেষ্টা করবেন।

ফিট থাকুন

ফিট থাকুন
ফিট থাকুন

প্রতিদিন ঘরের কাজ করুন,হালকা ব্যায়াম করুন,নিজের রুটিন মাফিক জীবনযাপন করুন এতে শরীর ফিট থাকবে। শরীর ফিট থাকলে মৃত্যুভয় এমনি কমে যায়।শুধু ক্যান্সার নয় যেকোন অসুখে মানুষ যখন খুব অসুস্থ হয়ে পরে তখনই মনে করে আর বুঝি বাঁচবো না! সুস্থ মানুষের এরকম চিন্তা ভাবনা কম থাকে। তাই যতটা সম্ভব সুস্থ থাকার চেষ্টা করুন।

ভয়ের বিষয়টি আপনজনদের জানান

ভয়ের বিষয় আলোচনা করুন
ভয়ের বিষয় আলোচনা করুন

অনেক লোক ভয় এবং উদ্বেগের মতো “নেতিবাচক” অনুভূতিগুলি লুকিয়ে রাখার চেষ্টা করে।তারা ভাবে এসব মানুষকে বললে হাসাহাসি করবে তাই ভয়ের বিষয়টি লুকিয়ে রাখে। এতে ভয় আরো শক্তিশালী এবং অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠে। একজন বিশ্বস্ত বন্ধু, পরিবারের সদস্য বা মানসিক ডাক্তারের সাথে আপনার ভয় সম্পর্কে কথা বলুন।

এরা আপনাকে আপনার ভয়ের পিছনে কারণগুলি খুঁজে বের করতে সাহায্য করতে পারে এবং মৃত্যু ভয় দূর করার উপায় সম্পর্কে তথ্য দিতে পারে। আপনি বলতে না পারলে প্রতিদিনের অভিজ্ঞতা নিজের ডায়ারিতে লিখে রাখুন।

একা থাকবেন না

মানুষ একা থাকলে এমনিতে রাজ্যের ভয় এসে ভর করে তার উপর ক্যান্সার রোগী একা থাকলে তো কথাই নেই। ক্যান্সার রোগী একা থাকলে মনে করে এই বুঝি মৃত্যুদূত চলে আসলো জীবন নেয়ার জন্য। আশেপাশে লোকজন থাকলে ভয় কম লাগে।

কাজে ব্যস্ত থাকুন

নিজের কাজ খুব মন দিয়ে করতে থাকুন। কাজে ব্যস্ত থাকলে অন্য বাজে চিন্তা মাথায় আসার সুযোগ পাবে না। মৃত্যুভয় আপনার মাথায় তৈরি হবে না।

বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিন

কাজের ফাকে সময় পেলে বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিন। বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিলে মন প্রফুল্ল থাকে। ভয়ভীতি আড্ডার সময় কোন কাজেই আসে না।

ভ্রমণ করুন

সময় পেলে ও শরীর সুস্থ থাকলে পরিবার নিয়ে অল্প দূরত্বের কোন জায়গা থেকে ঘুরে আসুন। পরিবারের সাথে কাটানো ভালো সময় মৃত্যুভয় দূর করতে সাহায্য করবে।

ভালোলাগার কাজ করুন

আপনার যে কাজ করতে ভালোলাগে সে কাজ করুন। ডায়ারিতে অভিজ্ঞতা লিখে রাখা,গান শোনা,ছবি দেখা,বাগান করা ইত্যাদি শখের কাজ করুন।

পর্যাপ্ত ঘুমান

ঘুম কম হলে বিভিন্ন দুঃস্বপ্ন আসে।ক্যান্সার রোগীর এই সব দুঃস্বপ্ন বেশিরভাগ সময় মৃত্যুকে ঘিরেই তৈরি হয়। তাই গভির ঘুম দিলে কোন দুঃস্বপ্ন আপনার মৃত্যুভয় বাড়াতে পারবে না।

ধর্মীয় অনুসাশাষণ মেনেচলুন
ধর্মীয় অনুশাষণ
ধর্মীয় অনুশাষণ

নিজ ধর্মের অনুসাশাষণ মেনে চললে মনে প্রশান্তি আসে। সবসময় সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনা করলে মনে বল আসে। মনে হয় সৃষ্টিকর্তা যেকোন উপায়ে আমাকে বাঁচিয়ে নেবেন।

how to get rid of death phobia of cancer patient in bangla

cancer rogir mittu voy dur korar upay

তত্থসুত্ত্রঃ cancer.org, …………… cancer.net USA

পরামর্শ দিয়েছেন-
ড. এস,এম,ডেভিডসন
ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ
কলরাডো,আমেরিকা

Tag: ক্যান্সার রোগীর মৃত্যুভয় … ক্যান্সার রোগীর মৃত্যুভয় . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . .

Please Click on Just one Add to help us

মহাশয়, জ্ঞান বিতরণের মত মহৎ কাজে অংশ নিন।ওয়েবসাইট টি পরিচালনার খরচ হিসেবে আপনি কিছু অনুদান দিতে পারেন, স্পন্সর করতে পারেন, এড দিতে পারেন, নিজে না পারলে চ্যারিটি ফান্ডের বা দাতাদের জানাতে পারেন। অনুদান পাঠাতে পারেন এই নম্বরে ০১৭২৩১৬৫৪০৪ বিকাশ,নগদ,রকেট।

এই ওয়েবসাইট আমার নিজের খরচায় চালাই। এড থেকে ডোমেইন খরচই উঠেনা। আমি একা প্রচুর সময় দেই। শিক্ষক হিসেবে আমার জ্ঞান দানের ইচ্ছা থেকেই এই প্রচেষ্টা। আপনি লিখতে পারেন এই ব্লগে। এগিয়ে নিন বাংলায় ভালো কিছু শেখার প্রচেষ্টা।

DMCA.com Protection Status