রুটি ফল বা ব্রেড ফ্রুট এর পুষ্টিগুণ

রুটি ফল বা ব্রেড ফ্রুট এর পুষ্টিগুণ

কেউ বারবার টাকা চাইলে আমরা রাগ তরে বলি টাকা কি গাছে ধরে? কথা এক্কেবারে ঠিক টাকা গাছে ধরে না। কিন্তু এখন যদি বলি রুটি কি গাছে ধরে? উত্তরে নিশ্চয় বলবেন না। রুটিতো গাছে ধরে না।

হেঁসেল ঘরে গরম তাওয়ায় সেঁকে রুটি তৈরি করা হয়। কিন্তু বাস্তবেই রুটি গাছে ধরে এবং সেই রুটি সাধারণ রুটি থেকে বেশ পুষ্টিকর।

আপনি হয়তো ভাবছেন এটা গল্পের বইতে বেশ মানায়,বাস্তবে এর কোন অস্তিত্ব নাই বোধয়। কিন্তু না,সত্যি সত্যিই রুটি ফলের অস্তিত্ব আছে।রুটি ফল ঠিক রুটির মত খাওয়া যায়! আফ্রিকার বাওবাব বা ব্রেড ট্রি বা রুটি গাছে রুটি ফল ধরে।

রুটি ফল বা ব্রেড ফ্রুট এর পুষ্টিগুণ
রুটি ফল গাছ

চোখ কপালে উঠে গেল নাকি?একজন নিষঙ্গ নাবিক জনমানবহীন এক দ্বীপে খাবার সন্ধান করতে গিয়ে এই রুটি ফল আবিষ্কার করেন। তিনি রুটির বিকল্প হিসেবে এই ফল ব্যবহার করেন। এই গল্প অনেকেই ছোট বেলায় পড়েছেন। এখন বড়বেলায় ব্রেড ফ্রুট সম্পর্কে জানতে লেখাটি পড়ে ফেলুন।

আপনি আরো পড়তে পারেন…. বাঁশ ফুল।বাঁশ ফল বাঁশ ফলের ঔষধি গুণ
আনারস ও দুধ একসাথে খেলে কি মৃত্যু হয়?

রুটি গাছ বা ব্রেড ট্রি কি?

রুটি গাছের উচ্চতা হয় ৫০ থেকে ৬৫ ফুট পর্যন্ত।গাছের পাতা ডেউয়া গাছের মতো বড় বড়। পাতাগুলো চিরল ও মসৃণ। পাতার কিনারা খাঁজকাটা।

রুটি গাছের বৈজ্ঞানিক নাম কি?

Artocarpus altilis/communis
গ্রীক শব্দ আরটস অর্থ রুটি আর কারপাস এর মানে হল ফ্রুট বা ফল। সুতরাং আরটোকারপাস এর মানে দাঁড়াচ্ছে; ব্রেডফ্রুট বা রুটিফল।

রুটি ফল বা ব্রেড ফ্রুট কি?

বাংলাদেশের জাতীয় ফল কাঁঠালের মতই রুটি ফলের আকৃতি। অনেকে কাঁঠাল ভেবে ভুলও করতে পারেন।একটি ফলের ওজন ৫০০গ্রাম থেকে ৬কেজি পর্যন্ত হতে পারে।

পাঁকা ফল মিষ্টি আলু বা কলার মত স্বাদ বিশিষ্ট।রুটি ফল পাউরুটির মত স্লাইস করে আগুনে ঝলসে খেতে হয়।ওভেনে বেক করলে অথবা তেলে ফ্রাই করলে, রুটি বেক করার মতো সুন্দর ঘ্রাণে ভরে যায়।

রুটি ফল
রুটি ফল

সেই কারণেই এই ফলের নামকরণ হয় ব্রেডফ্রুট এবং তার বাংলা অনুবাদ করলে হয় রুটিফল। অনেকে মনে করেন রুটি ফল ফল নয় শব্জি। বালাদেশে বসে ব্রেড ফ্রুট খাবার শখ হলে জুন-জুলাই মাসে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বোটানিক্যাল গার্ডেনে চলে যান। এখানে গাছ থেকে পেরে তাজা ব্রেড ফ্রুট খেতে পারবেন।

রুটি ফল গাছ বা ব্রেড ট্রি কোথায় জন্মে?

ব্রিটিশ অভিযাত্রী জেমস কুক

ব্রিটিশ অভিযাত্রী জেমস কুক হাওয়াই দ্বীপ আবিষ্কার করেছিলেন। তিনি এই দ্বীপে রুটি ফলের সম্পর্কে জানতে পারেন।জেমস কুক এই রুটিফল গাছের চাষাবাদ শুরু করেন তাঁর অধীনস্থ দাস-দাসীদের দ্বারা। তিনি দাস-দাসীদের দৈনন্দিন খাদ্য হিসেবে ব্যবহার করার জন্য ব্রেড ফ্রুট চাষ শুরু করেন।

অনুমান করা হয় ১৪০০ শতকে জলদস্যুদের মাধ্যমে হাওয়াই থেকে পলিনেশিয়ায় রুটিফল ছড়িয়ে পরে। শ্রীলংকা, মালয়েশিয়া, তাহিতি, পলিনেশিয়া, হাওয়াই ও ক্যারিবিয় দ্বীপপুঞ্জে রুটিফল ভাল জন্মে। আমাদের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদউদ্যান ছাড়াও কুমিল্লার বার্ডে একটি ব্রেড ফ্রুট গাছ রয়েছে।

রুটি ফল গাছের অজানা গল্প

রুটিফল নিয়ে হাওয়াই দ্বীপপুঞ্জতে একটি গল্প চালু আছে;হাওয়াই অঞ্চলে দুর্ভিক্ষ হলে যুদ্ধদেবতা কুর্কাইলির নিজেকে মাটিতে পুতে ফেলেন। যেখানে তিনি নিজেকে পুতে ছিলেন সেখান থেকেই ব্রেড ফ্রুট বা রুটিফলের জন্ম। আর সে ফল খেয়ে তখন হাওয়াইবাসির জীবন রক্ষা পায়।

রুটি ফল(ব্রেড ফ্রুট) এর ব্যবহার

ব্রেড ফ্রুট কাঁচা ও পাকা দুই ভাবেই খাওয়া যায়।কাচা অবস্থায় চাকা চাকা করে কেটে তাওয়ায় ভেজে বা সেঁকে রুটির মত খাওয়া যায়।

রুটি ফল(ব্রেড ফ্রুট) এর ব্যবহার
রুটিফল ভাঁজা

চিনি ও গুড় দিয়েও উপাদেয় খাবার তৈরি করা যায়। এমনকি জ্যাম,জেলি বানিয়েও খাওয়া যায়।কিছু এলাকায় ক্যান্ডি,চিপস এমনকি মিষ্টি আচারও তৈরি করা হয়ে থাকে।

রুটিফলের পুষ্টি গুন

ব্রেড ফ্রুট প্রতি ১০০ গ্রামে যে উপাদান গুলো থাকে।

উপাদানপ্রতি ১০০ গ্রামে
Energy৪৩১ কিলোজুল (১০৩ কিলোক্যালরি)
Carbohydrates২৭.১২ গ্রাম
Sugars১১ গ্রাম
Dietary fiber৪.৯ গ্রাম
Fat০.২৩ গ্রাম
Protein১.০৭ গ্রাম
রুটি ফলের(ব্রেড ফ্রুট) পুষ্টি উপাদান

রুটিফলের Vitamins

Vitaminsগ্রাম
Vitamin A equiv. lutein zeaxanthin২২ মাইক্রোগ্রাম
Thiamine (B1)০.১১ মিলিগ্রাম
Riboflavin (B2)০.০৩ মিলিগ্রাম
Niacin (B3)০.৯ মিলিগ্রাম
Pantothenic acid (B5)০.৪৫৭ মিলিগ্রাম
Vitamin B6০.১ মিলিগ্রাম
Folate (B9)১৪ মাইক্রোগ্রাম
Choline৯.৮ মিলিগ্রাম
Vitamin C২৯ মিলিগ্রাম
Vitamin E০.১ মিলিগ্রাম
Vitamin K০.৫ মাইক্রোগ্রাম
Vitamins

খনিজ উপাদান

খনিজ উপাদানগ্রাম
Calcium১৭ মিলিগ্রাম
Iron০.৫৪ মিলিগ্রাম
Magnesium২৫ মিলিগ্রাম
Manganese০.০৬ মিলিগ্রাম
Phosphorus৩০ মিলিগ্রাম
Potassium৪৯০ মিলিগ্রাম
Sodium২ মিলিগ্রাম
Zinc০.১২ মিলিগ্রাম
পানি৭০.৬৫ গ্রাম
খনিজ উপাদান

রুটিফলের ঔষধী গুন

  1. রুটিফলের পাতার ক্কাথ রক্ত উচ্চচাপ ও শ্বাসকষ্ট উপশম করে।
  2. জিহ্বার প্রদাহে পাতা বেঁটে প্রলেপ দেয়া হয়।
  3. কষ চর্মরোগ ও সাইটিকা উপশমে বিশেষ উপকারী।
  4. প্লিহার উপশমে ভাঁজা পাতার চূর্ন বিশেষ উপকারী!
  5. পাতা পুড়িয়ে ছাই দিয়ে চর্ম রোগের চিকিৎসা করা হয়।

রুটি ফল কি?

বাংলাদেশের জাতীয় ফল কাঁঠালের মতই রুটি ফলের আকৃতি। অনেকে কাঁঠাল ভেবে ভুলও করতে পারেন।

ব্রেড ফ্রুট কি?

রুটি ফল , -বাংলাদেশের জাতীয় ফল কাঁঠালের মতই রুটি ফলের আকৃতি। অনেকে কাঁঠাল ভেবে ভুলও করতে পারেন।

Breadfruit/Ruti fol ki?

Artocarpus altilis generally refers to the seedless trees typical of Polynesia but it may also refer to Artocarpus camansi Blanco, a seeded species naturally found in New Guinea and the Moluccas, sometimes called breadnut. Breadnut and breadfruit are considered different species by GRIN (USDA, 2015) and breadnut is considered a progenitor of breadfruit, Ruti fol kothay paoa jay?

Please Click On Just One Add To Help Us

মহাশয়, জ্ঞান বিতরণের মত মহৎ কাজে অংশ নিন।ওয়েবসাইট টি পরিচালনার খরচ হিসেবে আপনি কিছু অনুদান দিতে পারেন, স্পন্সর করতে পারেন, এড দিতে পারেন, নিজে না পারলে চ্যারিটি ফান্ডের বা দাতাদের জানাতে পারেন। অনুদান পাঠাতে পারেন এই নম্বরে ০১৭২৩১৬৫৪০৪ বিকাশ,নগদ,রকেট।

এই ওয়েবসাইট আমার নিজের খরচায় চালাই। এড থেকে ডোমেইন খরচই উঠেনা। আমি একা প্রচুর সময় দেই। শিক্ষক হিসেবে আমার জ্ঞান দানের ইচ্ছা থেকেই এই প্রচেষ্টা। আপনি লিখতে পারেন এই ব্লগে। এগিয়ে নিন বাংলায় ভালো কিছু শেখার প্রচেষ্টা।

All photo credit Goes to sutterstock.com