হেঁচকি বা হিক্কা কেন উঠে ? এটা থামাবেন কীভাবে?

হেঁচকি বা হিক্কা কেন উঠে এটা থামাবেন কীভাবে

হেঁচকি বা হিক্কা কেন উঠে?  এটা থামাবেন কীভাবে?/Hiccup/hechki/hikka

হেঁচকি বা হিক্কা কেন উঠে  এটা থামাবেন কীভাবে?/Hiccup/hechki/hikka

প্রাচীন কাল থেকে গ্রামে এই কথা প্রচলিত আছে যে “লবণ চুরি করে খেলে নাকি হেঁচকি বা হিক্কা(hechki/hikka)উঠে।আপনার কিন্তু সত্যি হাসি পাওয়ার কথা যে মানুষ লবণ চুরি করবে কেন? আর কি খাওয়ার জিনিশ নেই? ।যাই হোক আসুন যানাযাক হেঁচকি সম্পর্কে বিজ্ঞান কি বলে।

আপনি আরও পড়তে পারেন….গাড়িতে ভ্রমণের সময় বমি হয় কেন?

১ মিনিটে হেঁচকি/হিক্কা বন্ধ করুন!

হেঁচকি বা হিক্কা কেন উঠে?

আমাদের বুক ও পেটের অঙ্গ গুলো(পাকস্থলী, ফুসফুস, হার্ট, নাড়ীভুঁড়ি ইত্যাদি)  একটা টিউব এর মত জায়গার মধ্যে আছে। এই টিউব কে দুইভাগে ভাগ করা হয়, ১)বক্ষ গহ্বর ২)উদর গহ্বর। বক্ষ গহ্বরে থাকে পাকস্থলী, ফুসফুস, হার্ট, কলিজা।উদর গহ্বরে থাকে নাড়ীভুঁড়ি। একটা ধনুকের আকৃতিসদৃশ মাংসপেশি উদর গহ্বর কে বক্ষ গহ্বর থেকে পৃথক করে।এই পেশি কে “ডায়াফ্রাম” বাংলায় “মধ্যচ্ছদা ” বলে।

এই ডায়াফ্রাম এর স্বাভাবিক সংকোচন ও প্রসারণে আমাদের নিশ্বাস-প্রশ্বাস সংঘটিত হয়। ডায়াফ্রাম কে নিয়ন্ত্রণ করে ভেগাস নামক স্নায়ু (অনুভূতি পরিবহণকারী অঙ্গ) । কোন কারণে যদি ভেগাস স্নায়ুর ডায়াফ্রাম নিয়ন্ত্রণকারী অংশ উত্তেজিত হয় তবে ডায়াফ্রাম অনিয়ন্ত্রিতভাবে সংকোচিত ও প্রসারিত হয় ফলে নিঃশ্বাস বের হওয়ার সময় বাতাস বেশী গতিতে শ্বাসনালীর ছিদ্রপথে ধাক্কা দেয়।

এ কারণে হিক্ … হিক্ …হিক্ … শব্দে নিঃশ্বাস বের হয়।একে আমরা হেঁচকি বা হিক্কা (ইংরেজি Hiccups) বলে থাকি।(Hiccup/hechki/hikka)

হেঁচকি উঠার কারণ কি?

হেঁচকি উঠার উঠার সত্যিকার কারন অজানা। তবে এটা প্রমাণিত যে দ্রুত খাবার খেলে খাবারের সাথে পাকস্থলীতে বাতাস প্রবেশ করে।
এই বাতাস বেড় করার জন্য হেঁচকি উঠে।অতিরিক্ত মশলাদার খাবার খেলেও হেঁচকি উঠতে পারে। পাকস্থলী (পেট)পূর্ণ করে খাওয়া  হেচকি উঠার অন্য একটি কারন।
হেচকি উঠার মাধ্যমে শরীর আপনাকে জানিয়ে দেয় যে এখন খাওয়া বন্ধ করুন।
পাচনতন্ত্র তার কাজ শুরু করবেন।হেঁচকি বা হিক্কা(hechki/hikka) কেন উঠে  এটা থামাবেন কীভাবে?

হেঁচকি বন্ধের উপায়

হেঁচকি থামাবেন কীভাবে?

সাধারণ কারণে হেঁচকি(hechki/hikka) হলে তা একটু পর এমনিতেই বন্ধ হয়ে যাওয়ার কথা। তবে শারীরিক সমস্যা ও রোগে অনেক সময় বিরক্তিকরভাবে বারবার বা অবিরত হেঁচকি হতে পারে। এর থেকে পরিত্রান পেতে কিছু  পদ্ধতি ব্যবহার করা যেতে পারে –

  • ১। এক চামচ চিনি নিন ও জিহ্বার পিছনে [যেখান দিয়ে টক স্বাদ নেন] রাখুন। এটি ভেগাস স্নায়ুর উত্তেজনা বাড়াবে । লেবুতে কামড় দেয়া বা একটু ভিনেগারের স্বাদ নেয়া।
  • ২। কিছু ডাক্তার বলেন যে হেচকি উঠলে কানে আঙ্গুল দিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিন। এটি ভেগাস স্নায়ু কে উদ্দীপ্ত করবে।;কিন্তু সাবধান কানের বেশি গভীরে আঙ্গুল ঢোকাবেন না ।(hechki/hikka)
  • ৩। হঠাৎ করে অবাক হলে হেচকি চলে যায়।তাই পিঠে আচমকা আস্তে করে কিল বা থাবা দেয়া যায়।
  • ৪। পানি খেলে হেচকি চক্র বাধাগ্রস্থ হয়। পানি দিয়া গড়গড়া ও করতে পারেন
  • ৫। জিহ্বা বের করে রাখুন এটি হেচকি(hechki/hikka) রোধে সাহায্য করবে ।
  • ৬। কটন বার দিয়ে মুখের তলায় কাতুকুতু দিতে পারেন। যেকোন ধরনের সুড়সুড়ি হেচকি রোধে কাজ করে
  • ৭। নাক ধরে মুখ বন্ধ করুন[পুলে ঝাপিয়া পড়ার আগে যেভাবে করেন] যতক্ষণ না হেচকি চলে না যায়
  • ৮। একটি কাগজের ব্যাগের ভিতর শ্বাসপ্রশ্বাস নিন।এটি রক্তে কার্বনডাইঅক্সাইডের পরিমান বাড়িয়ে দিবে। ফলে মস্তিষ্ক হেঁচকি না তুলে অতিরিক্ত কার্বনডাইঅক্সাইড বেড় করতে ব্যাস্ত হবে এবং হেঁচকি বন্ধ হবে।হেঁচকি বা হিক্কা(hechki/hikka)
হেঁচকি বা হিক্কা কেন উঠে এটা থামাবেন কীভাবে?
হেঁচকি বা হিক্কা কেন উঠে এটা থামাবেন কীভাবে?

Hiccup/hechki/hikka ki?

Hechki hikka keno uthe ati thamaben kivabe?amader hechki uthe keno ?

Please Click On Just One Add To Help Us

মহাশয়, জ্ঞান বিতরণের মত মহৎ কাজে অংশ নিন।ওয়েবসাইট টি পরিচালনার খরচ হিসেবে আপনি কিছু অনুদান দিতে পারেন, স্পন্সর করতে পারেন, এড দিতে পারেন, নিজে না পারলে চ্যারিটি ফান্ডের বা দাতাদের জানাতে পারেন। অনুদান পাঠাতে পারেন এই নম্বরে ০১৭২৩১৬৫৪০৪ বিকাশ,নগদ,রকেট।

এই ওয়েবসাইট আমার নিজের খরচায় চালাই। এড থেকে ডোমেইন খরচই উঠেনা। আমি একা প্রচুর সময় দেই। শিক্ষক হিসেবে আমার জ্ঞান দানের ইচ্ছা থেকেই এই প্রচেষ্টা। আপনি লিখতে পারেন এই ব্লগে। এগিয়ে নিন বাংলায় ভালো কিছু শেখার প্রচেষ্টা।

DMCA.com Protection Status