স্বাস্থ্যকর তেল কোনটি?

স্বাস্থ্যকর তেল কোনটি?

Table Of Contents

স্বাস্থ্যকর তেল কোনটি? “কই মাছের তেলে কই ভাজা” আবার “মাছে ভাতে বাঙ্গালি” বাগধারা দুটি সবাই শুনেছেন আশাকরি! কিন্তু বাস্তবে কইয়ের তেলে কই ভাজলে সেই ভাজি আর মুখে দেয়া যায় না আবার মাছ ভাজি গরম ভাত না হলে বাঙ্গালির রসনা তৃপ্তি হয়না।যাইহোক এই ভাজাভাজির জন্যে চাই স্বাস্থ্যকর তেল।

স্বাস্থ্যকর তেল কোনটি
স্বাস্থ্যকর তেল কোনটি

কিন্ত কোন তেল টি স্বাস্থ্যের জন্যে ভালো তা নিয়ে নানা মুনির নানা মত প্রচলিত আছে। কেউ বলে সরিষার তেল স্বাস্থ্যকর তেল আবার কেউ বলে সয়াবিন তেল ভালো কেউ আবার জোরগলায় বলে রাইসব্রান তেল সবচেয়ে স্বাস্থ্যকর তেল। সব মতবাদ ছুঁড়ে ফেলে নিজেই গুণাগুণ যাচাই করে বুঝে নিন কোন তেল আপনার মুখের স্বাদ মেটানোর পাশাপাশি স্বাস্থ্যের জন্যও ভালো।

তেল কি?

তেল হলো এক ধরনের চর্বি। অনেকে খাসি বা গরুর চর্বি দেখেছেন জি এই চর্বির মতোই একটি চর্বি হলো তেল। তেল সাধারন তাপমাত্রায় তরল থাকে তাই একে অসম্পৃক্ত চর্বি বলে। তবে রান্নার তেলে কিছু সম্পৃক্ত চর্বি থাকে। তেলের গুণাগুণ বুঝতে হলে এই বিষয় গুলো সম্পর্কে আগে জেনে নিন

স্যাচুরেটেড ফ্যাট(সম্পৃক্ত চর্বি)

saturated fat বা সম্পৃক্ত চর্বি হলো এমন চর্বি যা সাধারনত ২৫°c বা কক্ষ তাপমাত্রায় কঠিন অবস্হায় থাকে। এই চর্বি মানব দেহের জন্য বেশি ভালো না।মানব দেহের জন্য ক্ষতিকর চর্বি LDL এর মাত্রা বৃদ্ধি করে Saturated fat

Unsaturated fat(অসম্পৃক্ত চর্বি)

যেসকল চর্বি ২৫°C বা কক্ষ তাপমাত্রায় তরল অবস্হায় থাকে তাদের Unsaturated fat বলে। এই চর্বি মানব দেহের জন্য উপকারী। এটি মানব দেহের জন্যে উপকারী HDL চর্বির পরিমাণ বৃদ্ধি করে। Unsaturated fat দুই ধরণের যথা ১। Polyunsaturated fat ২। Monounsaturated fat polyunsaturated fat বেশি স্বাস্থ্যকর Monounsatuated fat অপেক্ষাকৃত কম স্বাস্থ্যকর।

স্মোকিং পয়েন্ট

তেল দিয়ে কিছু ভাজার সময় চুলার তাপে তেল ফুটতে থাকে একে বলে স্মোকিং। স্মোকিং পয়েন্ট বেশি হলে তেল বেশি তাপেও তার গুণাগুণ ঠিক রাখতে পারে। আর স্মোকিং পয়েন্ট কম হলে তেল কম তাপে তার গুণাগুণ হারিয়ে ফেলে। অর্থাৎ যে তেলের স্মোকিং পয়েন্ট বেশি সেইটা বেশি স্বাস্থ্যকর তেল।

কোন তেল স্বাস্থ্যের জন্য ভালো?

স্বাস্থ্যকর তেল কোনটি?

সরিষার তেল

দক্ষিণ এশিয়ার দেশ গুলোতে রান্নায় সরিষার তেল আদিম কাল থেকে ব্যবহার হয়ে আসছে।সরিষা গাছের ফল থেকে এই তেল সংগ্রহ করা হয়।সরিষার তেলের স্মোকিং পয়েন্ট বেশি তাই ডিপ ফ্রাই করতে এই স্বাস্থ্যকর তেল ব্যবহার করা হয়।

সরিষার তেল
সরিষার তেল

খাঁটি সরিষার তেলের উপকারিতা

  1. সরিষার তেলে প্রচুর এন্টি অক্সিডেন্ট আছে যা মানব দেহে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে।
  2. পেটে জীবাণুর সংক্রমণ বন্ধ করতে বিশেষ ভূমিকা রাখে সরিষার তেল।
  3. দেহের তাপমাত্রা বৃদ্ধিকরতে এই তেল বেশ শক্ত ভূমিকা রাখে।
  4. সরিষার তেলে saturated fat বা সম্পৃক্ত চর্বি খুব কম থাকে ফলে এই তেল হার্টের জন্যে খুব ভালো।
  5. সরিষার তেলে প্রচুর polyunsaturated এবং Monounsaturated fat থাকে এই fat গুলো হার্ট এটাকের ঝুঁকি কমায়।
  6. সরিষার তেলে OMEGA-3 ও 6 ফ্যাট থাকে এই ভালো ফ্যাট গুলো মস্তিষ্কে এবং হার্টে শক্তি যোগান দেয়।

সরিষার তেলের অপকারিতা

ভালো গুণের পাশাপাশি সরিষার তেলের একটি খারাপ গুণ আছে তা হলো এই তেলে ৩৫-৪৮% erucic acid আছে। erucic acid কিডনির জন্যে ক্ষতিকর।আমেরিকা সহ ইউরোপের অনেক দেশে এই তেল ব্যবহার নিষিদ্ধ।আরও পড়ুন– সরিষার তেল বনাম সয়াবিন তেল

সয়াবিন তেল

পৃথিবীর প্রায় সব দেশেই রান্নার জন্য কমবেশি যে তেল ব্যবহৃত হয় তা হলো সয়াবিন তেল। সয়াবিনের বীজ থেকে এই তেল সংগ্রহ করা হয়।

সয়াবিন তেল
সয়াবিন তেল

সয়াবিন তেলের অপকারিতা

সয়াবিন তেলে saturated fat সরিষার তেলের চাইতে বেশি থাকে। তাই এই তেল স্বাস্থ্যের জন্যে খুব ভালো নয়। সয়াবিন তেলে Monounsaturated ও polyunsaturated fat সরিষার তেলের তুলনায় কম আছে। তাই বলা যায় এটা হার্টের জন্যে খুব বেশি স্বাস্থ্যকর তেল না। সয়াবিন তেলের স্মোকিং পয়েন্ট সরিষার তেলের স্মোকিং পয়েন্ট থেকে কম।

সয়াবিন তেলের উপকারিতা

সয়াবিন তেলে ভিটামিন A ও D আছে। অল্পমাত্রায় OMEGA-3 fat আছে। এই তেলে কোন erucic acid নেই।
তাই বলা যায় সরিষার তেলের তুলনায় সয়াবিন তেলে উপকারী উপাদান কিছুটা কম থাকলেও কোন অপকারী উপদান নেই। সুতরাং রান্নার কাজে সবসময় সরিষার তেল অপেক্ষা সয়াবিন তেল ব্যবহার করাই বেশি ভালো।

পাম তেল

পাম গাছের ফল থেকে তৈরি হয় পাম তেল। পাম তেল দামে সস্তা হওয়ায় নিম্নবিত্ত মানুষেরা এটা বেশি ব্যবহার করে। এই তেলে Saturated fat অনেক বেশি থাকে।তাই এই তেলে ভাজা খাবার সুস্বাদু হয়।

পাম তেল
পাম তেল

পাম তেলের অপকারিতা

এটা অস্বাস্থ্যকর তেল।হার্টের স্বাস্থ্যের জন্য এই তেল ভালো নয়।
এই তেলে ভিটামিন থাকে।polyunsaturated ও Monounsaturated fat এই তেলে কম থাকে। এই তেলের স্মোকিং পয়েন্ট কম তাই খুব তারাতারি তেলের আসল রং পরিবর্তন হয়।

জলপাই তেল

জলপাই তেল বা olive oile জলপাই গাছের ফল থেকে সংগ্রহ করা হয়।এর আর একটি জ্ঞাতি ভাই হলো এক্সট্রাভার্জিন ওলিভ ওয়েল। সৌখিন রান্নার জন্যে এশিয়ার দেশ গুলোতে এই স্বাস্থ্যকর তেল ব্যবহৃত হয়,তবে ইউরোপ মহাদেশে এই তেল ব্যাপক ব্যবহৃত হয়।

জলপাই তেল
জলপাই তেল

জলপাই তেল/অলিভ অয়েলের উপকারিতা


স্বাস্থ্যর জন্য এই তেল বেশ ভালো।এই স্বাস্থ্যকর তেল এ প্রচুর Monounsaturated এবং polyunsaturated fat আছে তাই হার্টের জন্য এই তেল বেশ ভালো। ওজন কমানোর পর ফিটনেস ধরে রাখতে রান্নায় এই স্বাস্থ্যকর তেল ব্যবহার করা হয়। Saturated fat এই স্বাস্থ্যকর তেল এ খুব কম মাত্রায় থাকে। জলপাই তেলের স্মোকিং পয়েন্ট বেশ উচ্চ মানের। পুষ্টিবীদদের মতে জলপাই তেল অপেক্ষা সরিষার তেল বেশি স্বাস্থ্যকর

সূর্যমুখীর তেল/সানফ্লাওয়ার তেল

সূর্যমুখী ফুলের সাথে আমরা সবাই পরিচিত। সূর্যমুখী গাছের বীজ থেকে এই তেল প্রস্তুত করা হয়। এই তেলের স্মোকিং পয়েন্ট বেশ উচ্চমানের। ডিপ ফ্রাই করতে এই স্বাস্থ্যকর তেল বেশি ব্যবহৃত হয়। ভারতীয় উপমহাদেশে এবং এশিয়ার অধিকাংশ দেশে এই তেল সয়াবিনের বিকল্প হিসেবে ব্যবহৃত হয়।

সূর্যমুখীর তেল/সানফ্লাওয়ার তেল
সূর্যমুখীর তেল/সানফ্লাওয়ার তেল

সানফ্লাওয়ার তেলের উপকারিতা

সানফ্লাওয়ার তেলে Saturated fat কম polyunsaturated এবং Monounsaturated fat বেশি।
তাই বলা হয় সূর্যমুখীর তেল হার্টের স্বাস্থ্যের জন্য বেশ ভালো। এই তেলের পুষ্টিগুণ প্রায় সরিষার তেলের কাছাকাছি।
পুষ্টিবিদরা প্রতিদিনের রান্নার কাজে এই তেল ব্যবহারের উপদেশ দেয়। তবে ডায়াবেটিক রোগিদের ব্লাড স্যুগার লেভেল হাই করতে পারে সূর্যমুখীর তেল তাই ডায়াবেটিক রোগিদের এই তেল থেকে দূরে থাকাই ভালো।

ক্যানোলা তেল

ইউরোপ ও আমেরিকা মহাদেশে সরিষার ফুল ও বীজ সদৃশ্য উদ্ভিদ ক্যানোলার বীজ থেকে ক্যানোলা তেল সংগ্রহ করা হয়।

ক্যানোলা তেল
ক্যানোলা তেল

ক্যানোলা তেলের উপকারিতা

এই তেলের পুষ্টিগুণ সয়াবিন তেলের চেয়ে বেশি। সয়াবিন তেলের প্রধান বিকল্প হলো ক্যানোলা তেল। saturated fat এই তেলে খুব কম। polyunsaturated ও Monounsaturated fat এই তেলে বেশি। OMEGA-3 fat এই তেলে বেশ ভালো মাত্রায় থাকে। হার্টের স্বাস্থ্যের জন্যে এই তেল বেশ ভালো। এই তেলের স্মোকিং পয়েন্ট মধ্যম মানের।

তিলের তেল

তিলের বীজ থেকে এই তেল সংগ্রহ করা হয়।হালকা সুগন্ধ থাকার জন্য এই তেল মধ্যপ্রাচ্য সহ পূর্ব এশিয়ার দেশ গুলোতে খুব বেশি ব্যবহৃত হয়, বিশেষ করে ম্যারিনেট করার কাজে।

তিলের তেল
তিলের তেল

তিল তেলের উপকারিতা

এই তেলের স্মোকিং পয়েন্ট উচ্চমাত্রার তাই ডিপফ্রাই করার জন্য তিল তেল বেশ জনপ্রিয়।
এই তেলে saturated fat কম মাত্রায় এবং Monounsaturated ও polyunsaturated fat বেশিমাত্রায় থাকে। এছাড়াও এই তেলে উল্লেখযোগ্য মাত্রায় magnesium, copper, calcium, iron and vitamin B6 থাকে। হার্টের স্বাস্থ্যের জন্য এই তেল ভালো।

বাদাম তেল

বিভিন্ন বাদামের বীজ থেকে সংগ্রহ করা হয় বাদাম তেল। সৌখিন রান্না ছাড়া বাদাম তেল খুব একটা ব্যবহার হয় না।এই তেলে প্রচুর ভিটামিন থাকে।

বাদাম তেল
বাদাম তেল

নারকেল তেল

বাংলাদেশ সহ পৃথিবীর অধিকাংশ দেশে নারকেল তেল চুলে লাগানো হয় কিন্তু শ্রীলংকা সহ কিছু সমুদ্র উপকূলীয় দেশে নারকেল তেল রান্নার তেল হিসেবে ব্যবহৃত হয়। প্রচুর saturated fat থাকার করণে এই তেল ব্যবহার করা স্বাস্থ্যের জন্য ভালো নয়।

নারকেল তেল
নারকেল তেল

রাইসব্রান তেল

ধানের তুষ থেকে তৈরি হয় রাইসব্রান তেল।

রাইসব্রান তেল
রাইসব্রান তেল

রাইসব্রান তেলের উপকারিতা

  1. খুব নিম্ন মাত্রার saturated fat এবং খুব উচ্চমাত্রার polyunsaturated ও Monounsaturated fat পাশাপাশি OMEGA-3 fat বেশি থাকার জন্য এই তেল কে হার্টের জন্য উৎকৃষ্ট তেল হিসেবে বিবেচনা করা হয়।
  2. উপরি পাওনা হিসেবে এই তেলে আছে oryzanol যা হার্ট ব্লোক, হার্ট এটাক, স্ট্রোকের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে।
  3. এই তেলের স্মোকিং পয়েন্ট খুবই উচ্চ মানের। ডিপফ্রাই, চিপস ভাজার জন্যে এই তেল ব্যবহৃত হয়।

স্বাস্থ্যকর তেল কোনটি?

প্রায় সকল স্বাস্থবিদদের মতে বিশ্বের এক নম্বর স্বাস্থ্যকর তেল হলো রাইসব্রান তেল।

স্বাস্থ্যকর তেল কোনটি?

sastokor tel konti?

rannar jonno valo tel konti?kon tel saster jonne valo? sorisar tel,soyabean tel,jolpi tel,palm tel,surjomukhir tel,canola tel,til tel,badam tel,rice bran tel,sasto sommoto tel,healthy oil,kon tel sobche valo,soriser teler upokarita

লেখক

pacemaker santo

https://kotokisuojana.com

লেখাটি ভালো লাগলে আপনার প্রিয়জনের সাথে শেয়ার করুণ।জ্ঞান বিতরণে সাহায্য করুন। আপনি ভালো লিখতে পারলে এই ওয়েবসাইট এ লেখা পাঠান।লেখা মনোনীত হলে পুরস্কার পাবেন। আপনার মাথায় উদ্ভট কোন প্রশ্ন ঘুরছে কিন্তু উত্তর পাচ্ছেন না। তাহলে দেরি না করে এই পোস্টের নিচে কমেন্ট বক্সে প্রশ্ন টি লিখুন।উত্তর পাবেন নিশ্চিত।

92 / 100

Leave a Comment