কুকুরের জিহ্বা বের হয় কেন দৌড়ানোর সময়

কুকুরের জিহ্বা বের হয় কেন দৌড়ানোর সময়

কুকুরের জিহ্বা বের হয় কেন দৌড়ানোর সময়…. আমরা কোন পরিশ্রান্ত বন্ধুকে হাঁপাতে দেখলে প্রায়শই বলি কুকুরের মত হাঁপাচ্ছিস কেন?কুকুর একচোট দৌড়ানোর পর জিহ্বা বের করে খুব হাঁপাতে থাকে এই দৃশ্য সবার পরিচিত। আপনি কখনো ভেবে দেখেছেন কি কুকুরের জিহ্বা বের হয় কেন দৌড়ানোর সময়?

আপনি আরো পড়তে পারেন – কুকুর মিলনের সময় আটকে যায় কেন ?

হঠাৎ কুকুর ধাওয়া বা তাড়া করলে কি করবেন?

কুকুর জিহ্বা বের করে দৌড়ায় কেন?

কোন প্রাণী যখন পরিশ্রম করে তখন ঐ প্রাণির দেহে প্রচুর শক্তির প্রয়োজন হয়।এই শক্তি উৎপন্ন হয় কোষে উপস্থিত গ্লুকোজ ও অক্সিজেন এর জৈবরাসায়নিক বিক্রিয়ার ফলে।

গ্লুকোজ ও অক্সিজেন এর বিক্রিয়ায় শক্তির পাশাপাশি প্রচুর তাপ উৎপন্ন হয়।যত বেশি পরিশ্রম করবে তত বেশি তাপ উৎপন্ন হবে।

এই তাপ দেহের স্বাভাবিক তাপমাত্রা বৃদ্ধি করে ফেলে। দেহের স্বাভাবিক তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেলে মস্তিষ্কের তাপ নিয়ন্ত্রণকারী অংশ উদ্দীপিত হয় ফলে রক্ত রস তাপের প্রভাবে বাষ্পীভূত হয়।

এই বাষ্প ঘর্মগ্রন্থির মাধ্যমে দেহের বাইরে বের হয়ে আসে এবং বাতাসের জলীয়বাষ্পের সাথে মিশে ঘনীভূত হয়।ঘনিভূত এই তরল লোমকূপের গোড়ায় জড়ো হয়। এই তরল কে আমরা ঘাম বলি।

ঘামের মাধ্যমে দেহ থেকে অতিরিক্ত তাপ বের হয়ে যায় দেহ শীতল হয়।
এখন কথা হল কুকুরের দেহ ত্বকে কোন ঘর্মগ্রন্থি নেই এদের পায়ের তলায় সীমিত পরিমাণে ঘর্মগ্রন্থি আছে যা তাপ বিমোচনের জন্যে যথেষ্ট নয়।

তাহলে কুকুরের দেহ থেকে অতিরিক্ত তাপ কিভাবে মুক্ত হবে?


কুকুরের লালাগ্রন্থি থেকে দৈনিক প্রায় ২-৩ লিটার লালা ক্ষরিত হয়। লালার প্রায় ৯৫-৯৮% পানি।আমরা জানি পানি হলো উৎকৃষ্ট মানের তাপ ধারণকারী তরল।

দেহে উৎপন্ন তাপ খুব সহজে পানিতে মিশে যায়। কুকুরের দেহে উৎপন্ন অতিরিক্ত তাপ এই লালার মাধ্যমে দেহের বাইরে মুক্ত হয়। এদের লালা ঘামের বিকল্প হিসেবে কাজ করে।তাই কুকুরের জিহ্বা বের হয় দৌড়ানোর সময়।

কুকুরের জিহ্বা বের হয় কেন দৌড়ানোর সময়
কুকুর জিহ্বা বের করে দৌড়ায় কেন?

পরিশ্রম না করলেও কুকুরের জিহ্বা বের করে থাকে কেন?

গরমে কুকুর জিহ্বা বের করে দৌঁড়ায় কেন?

গরমের দিনে কুকুর যখন বিশ্রাম নেয় তখনও কুকুরের জিহ্বা বের হয়ে থাকে। পরিবেশের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেলে আমরা ঘেমে যাই এবং ঘামের মাধ্যমে দেহের তাপ মুক্ত করি কিন্তু কুকুর তো ঘামতে পারে না তাহলে উপায়?

এক্ষেত্রে আবার জিহ্বা ভরসা। কুকুর যখন জিহ্বা বের করে থাকে তখন জিহ্বার লালা বাষ্পীভূত হওয়ার জন্য বাষ্পীভবনের সুপ্ততাপ প্রয়োজন। বাষ্পীভবনের সুপ্ততাপ সংগৃহীত হয় কুকুরের জিহ্বা হতে। এভাবে দেহ থেকে খুব সহজে তাপ মুক্ত হয়।

এই কারণে কুকুরের জিহ্বা বের হয়ে থাকে পরিশ্রম না করলেও।

কুকুরের জিহ্বা বের করে থাকার অসুবিধাঃ

ঠান্ডার দেশে যখন তাপমাত্রা শূন্যের নিচে নেমে যায় তখন কুকুরের জিহ্বা বের হয়ে থাকলে ফ্রস্টবাইট(Frostbite) হয়।

দেহের কোন অঙ্গ সরাসরি তিব্র ঠান্ডার সংস্পর্শে আসলে ঐ অঙ্গের ত্বক ফেটে যায় এবং ক্ষত সৃষ্টি হয় এই অবস্থাকে বলে ফ্রস্টবাইট।

গরমের দেশের কুকুর বরফের দেশে গেলে টিকে থাকতে পারবে না। কিন্তু এই পরিবেশে অভিযোজিত হয়েছে এমন একটি বিখ্যাত কুকুরের জাত হলো আলাস্কান হাস্কি কুকুর।

কুকুরের মূখে লালা ঝড়ে কেন?

কুকুরের মূখে লালা ঝড়ে কারণ, কুকুর যখন জিহ্বা বের করে থাকে তখন জিহ্বার লালা বাষ্পীভূত হওয়ার জন্য বাষ্পীভবনের সুপ্ততাপ প্রয়োজন। বাষ্পীভবনের সুপ্ততাপ সংগৃহীত হয় কুকুরের জিহ্বা হতে। এভাবে দেহ থেকে খুব সহজে তাপ মুক্ত হয়।

kukur gibba ber kore dowray keno?

kukurer gibba ber hoy keno dowranor somoy? kukurer gibba, kukurer mukhe lala jhore keno?

pacemaker santo

https://kotokisuojana.com

লেখাটি ভালো লাগলে আপনার প্রিয়জনের সাথে শেয়ার করুণ।জ্ঞান বিতরণে সাহায্য করুন। আপনি ভালো লিখতে পারলে এই ওয়েবসাইট এ লেখা পাঠান।লেখা মনোনীত হলে পুরস্কার পাবেন।

আপনার মাথায় উদ্ভট কোন প্রশ্ন ঘুরছে কিন্তু উত্তর পাচ্ছেন না। তাহলে দেরি না করে এই পোস্টের নিচে কমেন্ট বক্সে প্রশ্ন টি লিখুন।উত্তর পাবেন নিশ্চিত।

All photo credit Goes to sutterstock.com

87 / 100

2 thoughts on “কুকুরের জিহ্বা বের হয় কেন দৌড়ানোর সময়”

Leave a Comment